অনলাইন বাংলা সংবাদ পত্র

মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগের যুদ্ধ ঘোষণা

14

বেলাল আহমদ,লামা(বান্দরবান) প্রতিনিধি:  সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সভাপতি মোঃ আব্দুল আল মামুনের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈহ্লা।

এ সময় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, শিক্ষা, শান্তি ও প্রগতির পতাকাবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। জাতির মুক্তির স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া সোনার বাংলা বিনির্মাণের কর্মী গড়ার পাঠশালা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। শুধু ছাত্রলীগের ভালো কর্মী হলে চলবেনা, ভালো ছাত্রও হতে হবে। সৎ ও ভালো ছাত্র না হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়া সম্ভব নয়।

তিনি আরও বলেন, নেশা ও সন্ত্রাসকে না করে, প্রত্যেক ছাত্রলীগের নেতাকর্মীকে মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করতে হবে। কারণ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা উন্নয়নে এগিয়ে যাচ্ছে। তাই এ উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আসন্ন নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট প্রদান করে শেখ হাসিনাকে আবারও ক্ষমতায় আনার আহবান জানান তিনি।

সভায় বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইসলাম বেবী, যুগ্ন সাধারণ সস্পাদক লক্ষীপদ দাস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জহিরুল ইসলাম, বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জনি সুশীল, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য উসিং বাহাদুর রবিন বক্তব্য রাখেন। গতকাল শনিবার উপজেলা পরিষদ মাঠ চত্বরে লামা উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের সম্মেলনে সম্মানীত অথিতির বক্তেব্য দেন।

 সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সভাপতি মোঃ আব্দুল আল মামুনের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি,পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈহ্লা।

সভায় বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইসলাম বেবী, যুগ্ন সাধারণ সস্পাদক লক্ষীপদ দাস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জহিরুল ইসলাম, বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জনি সুশীল, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য উসিং বাহাদুর রবিন বক্তব্য রাখেন।

এ ছাড়া অন্যদের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাথোয়াইচিং মার্মা, সাংগঠনিক সম্পাদক ছাচিং প্রু মার্মা, মোস্তফা জামাল, মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফাতেমা পারুল, যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক বিজয় আইচ, ছাত্রলীগের স্কুল বিষয়ক সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, উপ-গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক সাগর হোসেন সোহাগ, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তৌহিদুর রহমান চৌধুরী রাশেদ, সাধারণ সম্পাদক সুজন চৌধুরী সঞ্জয় উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া চট্টগ্রাম, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও কক্সবাজার জেলার ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন।

সম্মেলন শেষে মংক্যাহ্লা মার্মাকে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও মোঃ শাহীনকে উপজেলা সাধারণ সম্পাদক এবং বিপ্লব দেব নাথকে পৌর সভাপতি ও মোঃ সুমনকে পৌর সাধারণ সম্পাদক করা হয়

১২ নভেম্বর, ২০১৭ইং/সত্যের সৈনিক/সুলতান মাহমুদ

Leave A Reply

Your email address will not be published.