রূপগঞ্জে পুলিশ ফাঁড়ির সামনে প্রকাশ্যে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে জাকির হোসেন (৩৪) নামে এক যুবলীগ কর্মীকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার ভুলতা তাঁতবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলের ৫০ গজের মধ্যে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ি অবস্থিত।

নিহত জাকির হোসেন ভুলতা ইউনিয়ন যুবলীগের সক্রিয় সদস্য এবং উপজেলার মর্তুজাবাদ গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে। নিহতের স্ত্রী উপজেলা যুব মহিলালীগ নেত্রী ফারজানা আক্তার জানান, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক সংলগ্ন ভুলতা তাঁতবাজারের সামনে ফুটপাটে প্রতিদিন হাট বসান তার স্বামী। এ হাটের খাজনার টাকা নিয়ে স্থানীয় মেম্বার আমীর হোসেন, শাহআলম মোল্লা, টেরা শাহিনসহ কয়েকজনের সঙ্গে তার স্বামীর বিরোধ চলছিল। বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে জাকির হোসেন মার্কেটে গিয়ে রেদওয়ান টাওয়ারের নীচে একটি দোকানে নাস্তা করছিলেন তিনি। এ সময় ১০/১২জন মুখোশধারী জাকির হোসেনকে সেখান থেকে তুলে নিয়ে  ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের উপরে প্রকাশ্যে কুপিয়ে আহত করে। পরে আশেপাশের লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সকাল ১০টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কে বা কারা তার স্বামীকে হত্যা করেছে এ ব্যাপারে নিশ্চিত নয় উল্লে­খ করে ফারজানা আক্তার আরো বলেন, তার অভিভাবক স্থানীয় সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজীর পরামর্শ অনুসারে মামলা করা হবে।

এ ব্যাপারে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনর্চাজ ইন্সপেক্টর শহিদুল ইসলাম বলেন, জাকির হোসেনকে ফাঁড়ির উল্টোপাশের একটি বিরিয়ানীর দোকান থেকে তুলে নিয়ে দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে হত্যা করেছে। ফাঁড়ির সামনে ফ্লাইওভারের কাজ চলার কারণে রাস্তার উল্টোপাশে দেখা যায়না। তবে এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হোটেলের এক কর্মচারীকে আটক করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, পুলিশ এক ব্যক্তিকে সন্দেহের তালিকায় রেখেছে। তাকে আটক করা হলে হত্যার আসল রহস্য উদঘাটন হবে বলে আশাবাদী তিনি।

০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/সত্যের সৈনিক/সুলতান মাহমুদ

Leave A Reply

Your email address will not be published.